শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন

দান সংক্রান্ত জরুরি নির্দেশনা এবং মোহরানা আল্লাহর পথে দান করার বিধান
রিপোর্টারের নাম / ১৭৩ কত বার
আপডেট: বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১
দান সংক্রান্ত জরুরি নির্দেশনা এবং মোহরানা আল্লাহর পথে দান করার বিধান
▬▬▬ ◈◉◈▬▬▬
প্রশ্ন: কোনও মহিলা যদি তার বিয়ের দেনমোহর আল্লাহ রাস্তায় দান করে তাহলে তা কি জায়েজ?
উত্তর:
বিয়েতে প্রাপ্ত সমূদয় মোহরের মালিক হল, স্ত্রী। এটা তার ব্যক্তিগত হালাল সম্পদ। সে তার সম্পদ যে কোনও বৈধ কাজে ব্যবহার করার অধিকার রাখে। চাই সে তা নিজের প্রয়োজনে খরচ করবে বা গচ্ছিত রাখবে বা কোথাও বিনিয়োগ করবে। স্বামীর আর্থিক অবস্থা দুর্বল হলে সে তা তার স্বামীকে দান করতে পারে। অনুরূপভাবে অসচ্ছল এতিম এবং গরিব-অসহায় মানুষের কল্যাণে বা ইসলামের সেবায় দানও করতে পারে।
তবে দানের ক্ষেত্রেও সতর্ক হতে হবে তা যেন, কোনও বেদাতির হাতে বা বিদআতি প্রতিষ্ঠানে না যায়। অন্যথায় বেদআত প্রচার-প্রসারে সহযোগিতার কারণে সে নেকির পরিবর্তে গুনাহগার হবে।
মনে রাখতে হবে, সম্পদ কোনও হারাম কাজে ব্যয় করা বৈধ নয়। কেননা কিয়ামতের দিন আল্লাহ তাআলা বান্দার অর্থ-সম্পদের হিসাব নিবেন যে, সে কোন পথে তা উপার্জন করেছে আর কোন কাজে ব্যয় করেছে। যেমন:
আব্দুল্লাহ্ বিন মাসঊদ রা. থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,
لَا تَزُوْلُ قَدَمُ ابْنِ آدَمَ يَوْمَ الْقِيَامَةِ مِنْ عِنْدِ رَبِّهِ حَتَّى يُسْأَلَ عَنْ خَمْسٍ: عَنْ عُمُرِهِ فِيْمَ أَفْنَاهُ؟ وَعَنْ شَبَابِهِ فِيْمَ أَبْلَاهُ؟ وَمَالِهِ مِنْ أَيْنَ اكْتَسَبَهُ؟ وَفِيْمَ أَنْفَقَهُ؟ وَمَاذَا عَمِلَ فِيْمَا عَلِمَ؟
“কিয়ামতের দিন আদম সন্তানের দু’টি পা আল্লাহ্ তা‘আলার সম্মুখ থেকে নড়বে না যতক্ষণ না সে পাঁচটি প্রশ্নের উত্তর দেয়। (সেগুলো হল):
● ক. তার পুরো জীবন সে কি কাজে ক্ষয় করেছে?
● খ. তার যৌবনকাল কিভাবে অতিবাহিত করেছে?
● গ. তার ধন-সম্পদ সে কোথায় থেকে সংগ্রহ করেছে এবং কী কাজে খরচ করেছে?
● ঘ. তার জ্ঞানানুযায়ী সে কতটুকু আমল করেছে?’’ [তিরমিযি ২৪১৬-সহিহ]
❑ কেউ যদি বৈধ কাজে তার বৈধ অর্থ খরচ করে তাহলে তার জন্য রয়েছে বিশাল সওয়াব। যেমন:
◈ আল্লাহ তাআলা বলেন,
مَّثَلُ الَّذِينَ يُنفِقُونَ أَمْوَالَهُمْ فِي سَبِيلِ اللَّهِ كَمَثَلِ حَبَّةٍ أَنبَتَتْ سَبْعَ سَنَابِلَ فِي كُلِّ سُنبُلَةٍ مِّائَةُ حَبَّةٍ ۗ وَاللَّهُ يُضَاعِفُ لِمَن يَشَاءُ ۗ وَاللَّهُ وَاسِعٌ عَلِيمٌ -‏ الَّذِينَ يُنفِقُونَ أَمْوَالَهُمْ فِي سَبِيلِ اللَّهِ ثُمَّ لَا يُتْبِعُونَ مَا أَنفَقُوا مَنًّا وَلَا أَذًى ۙ لَّهُمْ أَجْرُهُمْ عِندَ رَبِّهِمْ وَلَا خَوْفٌ عَلَيْهِمْ وَلَا هُمْ يَحْزَنُونَ
“যারা আল্লাহর রাস্তায় স্বীয় ধন-সম্পদ ব্যয় করে, তাদের উদাহরণ একটি বীজের মত, যা থেকে সাতটি শীষ জন্মায়। প্রত্যেকটি শীষে একশ করে দানা থাকে। আল্লাহ অতি দানশীল, সর্বজ্ঞ। যারা স্বীয় ধন সম্পদ আল্লাহর রাস্তায় ব্যয় করে, এরপর ব্যয় করার পর সে অনুগ্রহের কথা প্রকাশ করে না এবং কষ্টও দেয় না, তাদেরই জন্যে তাদের পালনকর্তার কাছে রয়েছে পুরস্কার এবং তাদের কোন আশংকা নেই, তারা চিন্তিতও হবে না।” [সূরা বাকারা: ২৬১ ও ২৬২]
◈ হাদিসে বর্ণিত হয়েছে, আবু হুরায়রাহ রা. হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,
مَنْ تَصَدَّقَ بِعَدْلِ تَمْرَةٍ مِنْ كَسْبٍ طَيِّبٍ، وَلاَ يَصْعَدُ إِلَى اللَّهِ إِلاَّ الطَّيِّبُ، فَإِنَّ اللَّهَ يَتَقَبَّلُهَا بِيَمِينِهِ، ثُمَّ يُرَبِّيهَا لِصَاحِبِهِ كَمَا يُرَبِّي أَحَدُكُمْ فَلُوَّهُ، حَتَّى تَكُونَ مِثْلَ الْجَبَلِ ‏
“যে ব্যক্তি তার হালাল ও পবিত্র উপার্জন থেকে একটি খেজুর পরিমাণও দান করে, আল্লাহ্ তা তাঁর ডান হাত দ্বারা কবুল করেন-আর পবিত্র ও হালাল বস্তু ব্যতীত আল্লাহর দিকে কোন কিছুই উত্থিত হয় না- তারপর তা দানকারীর জন্য প্রতিপালন করতে থাকেন তোমরা যেমন ঘোড়ার বাচ্চাকে প্রতিপালন করতে থাক। অবশেষে তা পাহাড়ের মত (বিশাল আকার) হয়ে যায়।” [সহীহ বুখারি ও মুসলিম]
আল্লাহু আলাম।
▬▬▬ ◈◉◈▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
জুবাইল, সৌদি আরব
আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর..
জনপ্রিয় পোস্ট
সর্বশেষ আপডেট