1. admin@avasmultimedia.com : Kaji Asad Bin Romjan : Kaji Asad Bin Romjan
একটি দুর্বল হাদিস: "দুআ করার সময় হাঁচি আসলে তা কবুল হয়। -আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল | Avas Multimedia একটি দুর্বল হাদিস: "দুআ করার সময় হাঁচি আসলে তা কবুল হয়। -আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল | Avas Multimedia
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০২:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ড. শাইখ আবু বকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া (হাফি:) এর সংক্ষিপ্ত পরিচিতি পুরুষ ও নারীদের দায়েমি (সার্বক্ষণিক) ফরজগুলো কি কি? হিন্দুদের বিয়েতে উপহার দেয়া এবং অমুসলিমদের সাথে বন্ধুত্ব সম্পর্কে জরুরি কথা হিন্দু রুমমেটের সাথে একসাথে থাকা এবং এক পাতিলে রান্নাবান্না ও খাওয়া-দাওয়া করার বিধান ওষুধ খাওয়ার আগে আল্লাহ শাফী, আল্লাহ কাফী, আল্লাহ মাফী বলার বিধান ভুলে যাওয়ার কারণে সংঘটিত গুনাহ আল্লাহ ক্ষমা করে দিয়েছেন আমি জানতে চাই, বিন/ইবনে এবং বিনত দ্বারা কী বুঝায়? সগিরা গুনাহ, ভয়াবহতা এবং কতিপয় উদাহরণ যাদু-টোনা থেকে সুরক্ষায় সহিহ সুন্নাহ ভিত্তিক আমল রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর কবরকে ‘রওযা’ বলা কি ঠিক? রওযা কী? রাসূল এর কবরের পাশে আর কাকে দাফন করা হয়েছে?

একটি দুর্বল হাদিস: “দুআ করার সময় হাঁচি আসলে তা কবুল হয়। -আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
  • ২৫ কতবার দেখেছে

প্রশ্ন: “দুআ করার সময় হাঁচি আসলে তা কবুল হয়” এটা কি প্রচলিত ভ্রান্ত ধারণা নাকি সহিহ হাদিস?

উত্তর:
এ মর্মে একটি হাদিস পাওয়া যায় কিন্তু বিজ্ঞ মুহাদ্দিসগণের দৃষ্টিতে তা সহিহ নয়। হাদিসটি হল,
روى أبو نعيم من حديث أبي رهم السمعي أنه قال قال رسول الله صلى الله عليه وسلم : وإنَّ ممَّا يُسْتجابُ بِهِ عندَ الدعاءِ العطاسُ-شرح البخاري لابن الملقن-قال في إسناده معاوية بن يحيى الأطرابلسي ضعفوه
আবু নুআইম বর্ণনা করেন, আবি রাহাম সামঈ থেকে, তিনি বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, “যে সব কারণে দুআ কবুল হয় সেগুলোর মধ্যে অন্যতম হল, দুআর সময় হাঁচি দেয়া।”
❑ হাদিসটির মান:
◈ আজলুনি তার বিখ্যাত জাল ও দুর্বল হাদিস সংকলন ‘কাশফুল খাফা ওয়া মুযিলুল ইলবাস’ গ্রন্থে বলেন, এটি জইফ (দুর্বল)।
◈ সহিহ বুখারি ব্যাখ্যাকার ইবনুল মুলাক্কিন বলেন,
في إسناده معاوية بن يحيى الأطرابلسي ضعفوه
“এর বর্ণনা সূত্রে মুয়াবিয়া বিন ইয়াহিয়া আতরাবলুসি নামক একজন বর্ণনাকারী আছে। মুহাদ্দিসগণ তাকে জইফ বলেছেন।” (শারহুল বুখারি ২৭/৬২০)
◈ বায়হাকি বলেন, إسناده فيه ضعف “এর সনদে দুর্বলতা আছে।” (শুআবুল ঈমান, ৭/৩০৮৮)
◈ আলবানি বলেন, এটি জইফ বা দুর্বল। (যাঈফুল জামে/১৯৮৬)। এছাড়াও অন্যান্য মুহাদ্দিসগণ এটিকে দুর্বল বলেছেন।
আল্লাহু আলাম।
▬▬▬▬◈◯◈▬▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মাধ‌্যমগুলোতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর..

আজকের দিন-তারিখ

  • বৃহস্পতিবার (রাত ২:৫০)
  • ১৭ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ৭ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি
  • ৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল)
© সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত-২০২০-২০২১ ‍Avasmultimedia.com
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD